বিকাশ ইসলামিক সেভিংস বিকাশের নতুন ফিচার

বিকাশ ইসলামিক সেভিংস বিকাশের নতুন ফিচার – আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠকবৃন্দ, কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব বিকাশ ইসলামিক সেভিংস বিকাশের নতুন ফিচার নিয়ে।

বিকাশ আমাদের জন্য দিন দিন নতুন ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে। তার মধ্যে একটি হলো বিকাশের ইসলামিক সেভিংস। শরিয়াহ ভিত্তিক লাভ পেতে পারেন বিকাশ এর “ইসলামিক সেভিংস” সুবিধা ব্যবহার করে। বিকাশ ও সিটি ব্যাংক একসাথে পার্টনারশিপে চালু করেছে ইসলামিক সেভিংস স্কিম। একে ইসলামিক ডিপিএসও বলা যেতে পারে। তো চলুন দেরি না করে বিস্তারিত জেনে নেই।

সিটি ব্যাংক লিমিটেড এর “শরিয়াহ ভিত্তিক ইসলামিক সেভিংস স্কিম” এর মাধ্যমে টাকা সঞ্চয় করা যাবে বিকাশে।বিকাশ এর এই নতুন ফিচার এর ফলে ঘরে বসে কোনো ধরনের কাগজপত্রের ঝামেলা ছাড়াই সঞ্চয় করা যাবে।

আরও পড়ুনঃ 

এই স্কিম অনুসারে প্রতি মাসে বিকাশ একাউন্ট থেকে নির্দিষ্ট টাকা কেটে নেওয়া হবে এবং তা সিটি ব্যাংক এর সিটি ইসলামিক একাউন্টে যোগ হবে, যা মেয়াদ শেষে বিকাশ একাউন্টে লাভসহ যোগ হয়ে যাবে। ভালো ব্যাপার হলো কোনো ধরনের ক্যাশ আউট ফি ছাড়া মেয়াদ শেষে লাভসহ জমা করা অর্থ ক্যাশ আউট করা যাবে। এতে অনেক সুবিধা পাওয়া যাবে। কারন ক্যাশআউট চার্জ এর টাকা কাটবে না।

সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ইসলামিক সেভিংস স্কিমের বিস্তারিত

  • ডিপোজিট এর পরিমাণঃ প্রতি মাসে ৫০০/১,০০০/২,০০০/৩,০০০টাকা
  • সেভিংস স্কিম এর মেয়াদঃ ২/৩/৪বছর
  • মুনাফাঃ প্রতি মাস শেষে সিটি ব্যাংক লিমিটেড দ্বারা নির্ধারিত হবে।
  • দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী এআইটি ও আবগারি শুল্ক প্রযোজ্য হবে।
আরও পড়ুনঃ  বিকাশ পিন রিসেট করার নিয়ম ২০২৩

জেনে নিন বিকাশ অ্যাপ দিয়ে কীভাবে ইসলামিক সেভিংস শুরু করবেন?

১। বিকাশ অ্যাপের হোমস্ক্রিন থেকে ‘সেভিংস’ বাটনে ট্যাপ করে এগিয়ে যান

২। এখন ‘নতুন সেভিংস স্কিম খুলুন’-এ ট্যাপ করুন

৩। ইসলামিক সেভিংস বেছে নিন

৪। সেভিংস-এর মেয়াদ (২/৩/৪ বছর) ও জমার ধরন (মাসিক) নির্বাচন করুন

৫। প্রতিমাসে যে পরিমাণ টাকা জমাবেন (৫০০/১,০০০/২,০০০/৩,০০০) তা সিলেক্ট করুন

৬। সিটি ব্যাংক ইসলামিকের মোট জমার তথ্য দেখে এগিয়ে যান

৭। আপনার নমিনি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সেভিংস-এর উদ্দেশ্য নির্বাচন করুন

৮। সেভিংস এর সার-সংক্ষেপ দেখে নিশ্চিত করুন

৯। নিয়ম ও শর্তাবলি ভালোভাবে পড়ে, বুঝে আপনার সম্মতি দিন

১০। আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন দিন

১১। সবশেষে – স্ক্রিনের নিচের অংশ ট্যাপ করে ধরে রাখুন

১২। সেভিংস-এর রিকোয়েস্টটি সম্পন্ন হলে, বিকাশ ও সিটি ব্যাংক থেকে কনফার্মেশন ম্যাসেজ পাবেন

১৩। ব্যাস! আপনি সফলভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে খুলে ফেললেন আপনার ইসলামিক সেভিংস স্কিম। প্রতিমাসের নির্দিষ্ট তারিখে আপনার বিকাশ একাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স রাখুন এবং কোনো খরচ ছাড়াই মেয়াদশেষে মুনাফাসহ মোট পরিমাণ ক্যাশ আউট করুন!

বিকাশ ইসলামিক সেভিংস সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

  • আপনার বিকাশ অ্যাপ থেকে আপনি একাধিক সেভিংস স্কিম খুলতে পারবেন।
  • সেভিংস স্কিমে নমিনির তথ্য প্রয়োজন অনুযায়ী চেঞ্জ করতে পারবেন।
  • সেভিংস স্কিমের জন্য বিকাশ/দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের পক্ষ থেকে কোনো অতিরিক্ত চার্জ নেই।
  • আপনার ই-টিন এর তথ্য সেভিংস স্কিমে প্রদান করলে আপনি সেভিংস স্কিমে অর্জিত লাভের উৎসে কর কম কর্তন করা হবে। এক্ষেত্রে সেভিংস স্কিমের মেয়াদ শেষ হবার আগে আপনি বিকাশ অ্যাপের সেভিংস অপশনে গিয়ে যেকোনো সময় ই-টিন এর তথ্য প্রদান করতে পারবেন। আর ই-টিন না থাকলে, এনবিআর-এর ওয়েবসাইটে গিয়ে তা গ্রহণ করুন: https://secure.incometax.gov.bd/TINHome
    বাংলাদেশ সরকারের বর্তমান অধ্যাদেশ অনুসারে নিম্নলিখিত হার প্রযোজ্য হবে:আয়কর রিটার্ন জমাদানের প্রমাণ ঢাকা ব্যাংকে জমা দেয়া থাকলে মুনাফার উপর ১০% কর উৎসে কাটা হবে, অন্যথায় ১৫% কর উৎসে কাটা হবে।
  • ৩ মাস পূর্ণ হবার আগে দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের সাথে কোনো সেভিংস স্কিম বাতিল করা সম্ভব নয়। তবে আপনি ৩ মাস শেষে যেকোনো সময় এনক্যাশমেন্টের জন্য রিকোয়েস্ট করতে পারবেন।
  • আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন এবং ভেরিফিকেশন কোড কখনো কারো সাথে শেয়ার বা প্রকাশ করবেননা। আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন, ওটিপি এবং অন্যান্য তথ্য যদি অন্য কেউ ব্যবহার করে এবং প্রতারণামূলকভাবে এই সঞ্চয় সুবিধা বাতিল করে দেয় তবে বিকাশ-এর কোনো দায় বহন করবেনা
  • আপনি যদি মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্বেই আপনার সেভিংস স্কিম বন্ধ করতে চান, তবে আপনি আপনার নির্বাচিত সেভিংস স্কিম অনুযায়ী সম্পূর্ণ মুনাফা নাও পেতে পারেন। অর্জিত মুনাফা সম্পর্কিত আরো তথ্যের জন্য অনুগ্রহ করে দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের শর্তাবলি দেখুন।
  • বিকাশ নির্ধারিত তারিখে গ্রাহকদের আমানত/কিস্তির পরিমাণ সংগ্রহের অধিকার সংরক্ষণ করে। আপনার বিকাশ গ্রাহক একাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালান্স/অর্থ না থাকলে বা কিস্তির টাকা একাউন্ট থেকে কেটে নেওয়ার সময় আপনার একাউন্ট সক্রিয় না থাকলে লেনদেন ব্যর্থ হবে এবং এক্ষেত্রে পরবর্তী সাত দিন বিকাশ আপনার একাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়ার চেষ্টা করবে। যদি আপনার বিকাশ একাউন্টে অপর্যাপ্ত ব্যালেন্স/একাউন্ট স্থিতি থাকার কারণে অথবা একাউন্ট সক্রিয় না থাকার কারণে কিস্তির টাকা কেটে নেওয়া সম্ভব না হয়, তবে আপনি উক্ত দিনের মুনাফা পাবেননা।
  • যদি কিস্তি সংগ্রহের সর্বশেষ চেষ্টা ব্যর্থ হয়, তবে তবে আপনি কিস্তি প্রদানে ব্যর্থ হয়েছেন বলে গণ্য হবে এবং উক্ত আমানতের পরিমাণের উপর আপনি মুনাফা পাবেননা।
  • বিকাশ কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যেকোনো সময় উল্লিখিত শর্তাবলি পরিবর্তন বা সংশোধন করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
আরও পড়ুনঃ  বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার। Bkash Live Chat

তথ্যসূত্রঃ বিকাশ অফিশিয়াল।

উপরে বিকাশ ইসলামিক সেভিংস বিকাশের নতুন ফিচার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন। কেউ কিছু বুঝতে না পারলে কমেন্ট বক্সে জানাবেন।
ধন্যবাদ সবাইকে।

Rate this post

3 thoughts on “বিকাশ ইসলামিক সেভিংস বিকাশের নতুন ফিচার”

Leave a Comment