বিকাশের নতুন ফিচার বিকাশ ডিজিটাল সেভিংস | টাকা সঞ্চয় করুন বিকাশে

প্রথমবারের মতো বিকাশ এবং আইডিএলসি নিয়ে এল ‘ডিজিটাল সেভিংস সেবা’। যেখানে আপনি বিভিন্ন মেয়াদ অনুযায়ী টাকা জমা রাখতে সঞ্চয় করতে পারবেন এবং জমানো টাকার উপর পাবেন ইন্টারেস্ট।
বিকাশ এবং আইডিএলসি ফাইন্যান্সের এই উদ্যোগকে সাধুবাধ যানাই কারন এখন থেকে গ্রাহকরা যেকোনো সময়, যেকোনো স্থান থেকে কয়েকটি সহজ ধাপের মাধ্যমেই  ক্ষুদ্র অংকের এ মাসিক সঞ্চয় সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

এ সেবার মাধ্যমে আপনি বর্তমানে মাসিক ৫০০, ১০০০, ২০০০ এবং ৩০০০ টাকা কিস্তিতে দুই বছর, তিন বছর এবং  চার বছরের স্কিম সুবিধা নিতে পারবেন।

বিকাশ সেভিংস  কি?

আমরা মূলত সঞ্চয় বা ডিপিএস সেবা নিতে সরাসরি ব্যাংকে টাকা জমা বা সঞ্চয় করে থাকি। এতে আমাদের অনেক সময় অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়। ব্যাংকে গিয়ে টাকা জমা দেওয়া, সঞ্চয় একাউন্ট করার কাগজপত্রের ঝামেলা এবং অনেক সময় টাকা জমা দেওয়াটাও ভুলে যাই। এসব ঝামেলা থেকে মুক্ত করতে বিকাশ সেভিংস এর এই সেবা চালু করা হয়েছে। এখন থেকে টাকা জমা দিতে বা সেভিংস একাউন্ট খুলতে আর ব্যাংকে যেতে হবে না। কয়েকটি ধাপ অনুসরন করেই বিকাশের সেভিংস একাউন্ট করে ফেলতে পারবেন। এবং আপনার টাকা সঞ্চয় বা জমা দিতেও ব্যাংকে যেতে হবে না। বিকাশ নির্দিষ্ট তারিখে আপনার একাউন্টের টাকা সেভিংস এ জমা করে দিবে।

আরও পড়ুনঃ  বিকাশে জমানো টাকার উপর ইনটারেস্ট। জানুন বিস্তারিত

আরো পড়ুনঃ

কীভাবে বিকাশ অ্যাপ দিয়ে টাকা জমানো শুরু করবেন?

প্রথমে বিকাশ অ্যাপে প্রবেশ করুন এবং ‘সেভিংস’ বাটনে ট্যাপ করে এগিয়ে যান।

এখন ‘নতুন সেভিংস স্কিম খুলুন’-এ ক্লিক করুন।

আপনি কত দিনের একাউন্ট করবেন তার সময়কাল সিলেক্ট করুন

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

প্রতি মাসে কত টাকা টাকা জমা করতে চান তা সিলেক্ট করুন এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের স্কিম নির্বাচন করে মোট জমার তথ্য দেখে এগিয়ে যান।

গ্রামীণফোন-এ বিকাশ রিচার্জ করলেই পেতে পারেন বাইক-টিভিসহ আকর্ষণীয় সব পুরস্কার!”]

এখন আপনার নমিনি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সকল তথ্য দিয়ে সেভিংস-এর উদ্দ্যেশ্য নির্বাচন করুন।

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট
বিকাশের সেভিংস একাউন্ট

সেভিংস সামারি দেখে নিশ্চিত হয়ে নিন।

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

নিয়ম ও শর্তাবলী ভালোভাবে পড়ে নিন,সবকিছু বুঝে আপনার সম্মতি দিন।

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার দিন।

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

সবশেষে – স্ক্রিনের নিচ ট্যাপ করে ধরে রাখুন।

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

সেভিংস-এর রিকোয়েস্টটি সম্পন্ন হলে, বিকাশ ও আইডিএলসি থেকে কনফার্মেশন মেসেজ পেয়ে যাবেন;

ব্যাস! আপনার কাজ শেষ এখন অআপনি সফলভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে খুলে ফেললেন আপনার সেভিংস স্কিম।

বিকাশ সেভিংসের সুবিধা সমুহ

  • বিকাশ অ্যাপে সেভিংস করলে একজন গ্রাহক পাবেন অনেকগুলো সুবিধা। আর এই সুবিধাগুলো হলো
  • নতুন সেভিংস একাউন্ট খোলার সুবিধা
  • সেভিংসের সকল তথ্য বিকাশ অ্যাপেই দেখতে পারবেন
  • সেভিংসের কয়টি ধাপ সম্পন্ন হয়েছে অ্যাপে দেখতে পারবেন।
  • পরের কিস্তির টাকা জমা দেওয়ার জন্য আগাম নটিফিকেশন।
  • বিকাশ অ্যাপে মাধ্যমে টাকা জমা দেওয়া
  • ইন্টারেস্ট
  • সঞ্চয়ের মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে সেই টাকা বিকাশে সরাসরি নিতে পারবেন।

IDLC পুরাতন গ্রাহক এই সুবিধা পাবেন যেভাবে

আপনি যদি IDLC Finance Limited এর পুরাতন গ্রাহক হন তিবে আপনিও বিকাশের মাধ্যমে বিকাশ সেভিংস সেবাটি উপভোগ করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে আওনার নিজের এলাকার IDLC অফিসে গিয়ে বিকাশ সেভিংস এর সাথে যুক্ত হতে হবে।

আরও পড়ুনঃ  ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম ও সুবিধাসমূহ

বিকাশের সেভিংস কতো টাকা থেকে শুরু

বিকাশ সেভিংস সেবার মাধ্যমে আপনি বর্তমানে মাসিক ৫০০, ১০০০, ২০০০ এবং ৩০০০ টাকা কিস্তিতে দুই বছর, তিন বছর এবং  চার বছরের স্কিম সুবিধা নিতে পারবেন।

বিকাশ সেভিংসের টাকা কিভাবে জমা দিতে হবে

বিকাশ সেভিংস একাউন্ট

আপনাকে নিজে জমা দিতে হবে না, আপনি যে তারিখে বিকাশ সেভিংস একাউন্ট খুলবেন প্রতি মাসের সেই তারিখে বিকাশ আপনার একাউন্ট থেকে অটোমেটিক জমা করে দিবে।

বিকাশ সেভিংসের টাকা জমা দিতে ব্যর্থ  হলে

বিকাশ নির্ধারিত তারিখে গ্রাহকদের আমানত/কিস্তির পরিমাণ সংগ্রহের অধিকার সংরক্ষণ করে। আপনার বিকাশ গ্রাহক অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালান্স/অর্থ না থাকলে বা কিস্তির টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেওয়ার সময় আপনার অ্যাকাউন্ট সক্রিয় না থাকলে লেনদেন ব্যর্থ হবে এবং এক্ষেত্রে পরবর্তী দু’দিন বিকাশ আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়ার চেষ্টা করবে।  যদি আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টে অপর্যাপ্ত স্থিতি/ব্যালান্স থাকার কারণে অথবা অ্যাকাউন্ট সক্রিয় না থাকার কারণে কিস্তির টাকা কেটে নেওয়া সম্ভব না হয়, তবে আপনি উক্তদিনের মুনাফা পাবেন না

বিকাশ সেভিংসের মেয়াদ পূর্ণ হলে টাকা কিভাবে তুলবেন

বিকাশ সেভিংসএর মেয়াদ পূর্ণ হলে মুনাফা সহ মুল টাকা আপনার বিকাশ একাউন্টে এড করে দিবে।

বিকাশ সেভিংসের টাকা তুলতে চার্জ কতো

বিকাশ সেভিংসের টাকা তুলতে কোন চার্জ প্রযোজ্য হবে না। এটি সম্পূর্ণ ফ্রীতে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। তবে এই ক্ষেত্রে আপনাকে সকল জমানো টাকা একবারে ক্যাশ আউট করতে হবে।

আপনার একাউন্টে ইন্টারেস্ট গ্রহণ করতে না চাইলে নীচের ধাপগুলো অনুসরণ করুনঃ

  • আপনার বিকাশ একাউন্ট নম্বর থেকে 16247 এ কল করুন
  • ভাষা সিলেক্ট করুন (বাংলার জন্যে ১ এবং ইংরেজির জন্যে ২ চাপুন )
  • জমানো টাকার উপর ইন্টারেস্ট এবং অন্যান্য তথ্যের জন্য ৫ চাপুন
  • ইন্টারেস্ট সংক্রান্ত তথ্যের জন্যে ১ চাপুন
  • ইন্টারেস্ট গ্রহণ বন্ধ করতে ১ চাপুন  (সেবাটি পূর্বে বন্ধ করা থাকলে  পুনরায় চালু করতে চাইলে ২ চাপুন)
  • আপনার অনুরোধটি গৃহীত হলে আপনাকে মেসেজ এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে
আরও পড়ুনঃ  বিকাশ অ্যাপে তথ্য আপডেট করে পেয়ে যান ১০ টাকা বোনাস

মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে কি টাকা উঠাতে পারব?

আইডিএলসসি ও বিকাশ সেভিংস এর ক্ষেত্রে গ্রাহক ৭% ইন্টারেস্ট বা সুদ (বার্ষিক হিসাবে) পাবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বিধি-বিধান অনুসারে,৩মাস পূর্ণ হবার আগে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাথে কোনো সেভিংস স্কিম বাতিল করা সম্ভব নয়। তবে আপনি ৩ মাস শেষে যেকোনো সময় এনক্যাশমেন্টের জন্য রিকোয়েস্ট করতে পারবেন।

আরও বিস্তারিত তথ্য জানতে আইডিএলসসি হটলাইন 16409 (রবি-বৃহস্পতিবার সকাল 9am-10pm) নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

বিঃদ্রঃ

বিকাশ কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যে কোনও সময় উল্লিখিত শর্তাবলি পরিবর্তন বা সংশোধন করার অধিকার সংরক্ষণ করে।

শেষ কথা

এই আর্টিকেলের সকল তথ্য বিকাশ অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং ইন্টারনেট তথ্য থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। তাই যদি কোন ভুলভ্রান্তি থেকে থাকে তবে বিকাশ হেল্প লাইন বা বিকাশ কল সেন্টারে কল করে যেনে নিতে পারেন।
যদি আমাদের আর্টিকেল বিষয়ে কোন মন্ত্যব থাকে তবে নিচের কমেন্ট বক্সে লিখে ফেলতে পারেন। আমিরা আপনাকে সহযোগিতা করার চেস্টা করব।

5/5 - (1 vote)