বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়– আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক বৃন্দ, কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আপনি কি বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? তাহলে আজকের পোস্টটি আপনার জন্য। আজকে আমি শেয়ার করব বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে। আশা করি সবাই মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

আমাদের দেশে তরুণদের মাঝে শিক্ষার আগ্রহ অনেক বেশি। বর্তমানে আমাদের সাক্ষরতার হার 75.2 শতাংশ । তাহলে আমরা বলতে পারি শিক্ষার দিক দিয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাচ্ছি। এজন্য প্রতিবছর লাখ লাখ শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে থাকে তার স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ার জন্য।

আমাদের দেশে বর্তমানে সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে 42 টি। লাখ লাখ শিক্ষার্থীকে উচ্চশিক্ষার জন্য এই ৪২ টি বিশ্ববিদ্যালয় সুযোগ দিতে পারে না এর জন্য কিছু অধিভুক্ত কলেজ রয়েছে। কিন্তু আমাদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোর কারণেই এত বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ

আমাদের দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে মোট ৬৮৫টি অধিভুক্ত কলেজ রয়েছে। প্রত্যেকটি কলেজে প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার আসন রয়েছে। আপনি যদি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ না পান তাহলে আপনি এই দশটি অধিভুক্ত যে কোন একটি কলেজ থেকে আপনি উচ্চশিক্ষার জন্য ভর্তি হতে পারেন।

বাংলাদেশের সেরা ১০টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা

বাংলাদেশের সেরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা করতে, আমরা অতীতের ফলাফল, কলেজের ঐতিহ্য, সুযোগ-সুবিধা, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানদণ্ড নিয়েছি।

এক নজরে বাংলাদেশের সেরা 10টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা:

  1. রাজশাহী কলেজ, রাজশাহী
  2. সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ, বরিশাল
  3. সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া
  4. সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা
  5. কারমাইকেল কলেজ, রংপুর
  6. সরকারি ব্রজলাল (বিএল) কলেজ, খুলনা
  7. সরকারি আনন্দমোহন কলেজ, ময়মনসিংহ
  8. সরকারি এমএম কলেজ, যশোর
  9. সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, কুমিল্লা
  10. এমসি কলেজ, সিলেট
আরও পড়ুনঃ  বাংলাদেশের সেরা 10 টি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল

1.রাজশাহী কলেজ, রাজশাহী

রাজশাহী কলেজ বাংলাদেশের প্রাচীনতম কলেজগুলির মধ্যে একটি।  রাজশাহী কলেজ বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স এবং মাস্টার্স ডিগ্রি প্রদান করে থাকে। রাজশাহী কলেজ প্রথম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজ যা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান শুরু করে।

কলেজটি রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল সংলগ্ন রাজশাহী শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত।  প্রতি বছর হাজার হাজার শিক্ষার্থী রাজশাহী কলেজে ভর্তির জন্য আবেদন করে। 1996 সাল থেকে, এই কলেজটি উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ছাত্রদের ভর্তি করা বন্ধ করে দিয়েছিল, কিন্তু বর্তমানে 2010-2011 শিক্ষাবর্ষ থেকে পুনরায় ভর্তি নিচ্ছে।

এক নজরে রাজশাহী কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1873
  • প্রতিষ্ঠাতা: রাজা হরনাথ রায় চৌধুরী
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • সংক্ষিপ্ত রূপ: আরসি কলেজ
  • ওয়েবসাইট: www.rc.edu.bd

2.সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ, বরিশাল

সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান এবং প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  কলেজটি বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল, বরিশাল জেলায় অবস্থিত।  2014 সালে, অধ্যাপক বিপ্লব কুমার ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে এবং অধ্যাপক নাসিম হায়দারের সহায়তায়, পরিসংখ্যান বিভাগে অনার্স কোর্স চালু করা হয়েছিল।
কলেজের মূল গ্রন্থাগারে প্রায় ৪০,০০০ বইয়ের সংগ্রহ রয়েছে।  এটিতে 1টি বাণিজ্য ভবন, 2টি কলা ভবন, একটি অডিটোরিয়াম, 4টি বিজ্ঞান ভবন এবং 3টি খেলার মাঠ রয়েছে।

এক নজরে ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ :

  • প্রতিষ্ঠিত: 1889
  • প্রতিষ্ঠাতা: মহাত্মা অশ্বিনীকুমার দত্ত
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • সংক্ষিপ্ত রূপ: বিএম কলেজ
  • ওয়েবসাইট: bmcollege.gov.bd

3.সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া

আজিজুল হক কলেজ দেশের শ্রেষ্ঠ উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ এবং বাংলাদেশের অন্যতম সেরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হিসেবে দেশের একটি সুপরিচিত নাম।  প্রখ্যাত ভাষাবিদ ডক্টর মুহম্মদ শহীদুল্লাহ আজিজুল হক কলেজের অধ্যাপক ছিলেন।
এই কলেজটি বাংলাদেশের বগুড়ার প্রাণকেন্দ্র সাতমাথায় অবস্থিত।  এটি বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  অবিভক্ত বাংলার বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব স্যার আজিজুল হকের নামে কলেজটির নামকরণ করা হয়েছে।  তিনি তখন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

এক নজরে সরকারি আজিজুল হক কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1939
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, রাজশাহী
  • সংক্ষিপ্ত নাম: সর. আ. হ. কলেজ
  • ওয়েবসাইট: www.ahcollege.gov.bd
আরও পড়ুনঃ  বাংলাদেশের সেরা 10 টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

4.সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা

সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ বিভক্ত ব্রিটিশ বাংলায় প্রতিষ্ঠিত একটি ঐতিহাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  কলেজটি পাবনা জেলার সদরে অবস্থিত।  শ্রী গোপাল চন্দ্র লাহিড়ী 1898 সালে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন।
প্রাথমিকভাবে মাত্র ২৬ জন শিক্ষার্থী নিয়ে কলেজটির যাত্রা  শুরু হয়।  কিন্তু পরবর্তীতে এ কলেজের শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়তে থাকে।

এক নজরে সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1898
  • প্রতিষ্ঠাতা: শ্রী গোপাল চন্দ্র লাহিড়ী
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • ওয়েবসাইট: www.edwardcollege.edu.bd

5.কারমাইকেল কলেজ, রংপুর

কারমাইকেল কলেজ দেশের ঐতিহাসিক কলেজগুলোর মধ্যে  একটি।  কলেজটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বৃহত্তর রংপুরের শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে প্রধান ভূমিকা পালন করেছে।  কলেজটির নামকরণ করা হয়েছে লর্ড ব্যারন কারমাইকেলের নামে।

কারমাইকেল কলেজে বিজ্ঞান, কলা ও বাণিজ্য অনুষদে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানো হয়। কলেজটি বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত এবং বিভিন্ন বিষয়ে অনার্স ডিগ্রি প্রদান করে থাকে।

এক নজরে কারমাইকেল কলেজ কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1916
  • নাম: লর্ড ব্যারন কারমাইকেল
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, দিনাজপুর
  • সংক্ষিপ্ত নাম: কারমাইকেল কলেজ
  • অবস্থান: লালবাগ, রংপুর, বাংলাদেশ
  • ওয়েবসাইট: ccr.gov.bd

6.সরকারি ব্রজলাল (বিএল) কলেজ, খুলনা

সরকারি ব্রজলাল কলেজ, যা বিএল কলেজ নামেও পরিচিত, বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষার অন্যতম প্রাচীন প্রতিষ্ঠান। সরকার বিএল কলেজ খুলনা জেলার দৌলতপুরে অবস্থিত।  1902 সালের জুলাই মাসে, খুলনার শিক্ষার পৃষ্ঠপোষক শ্রী ব্রজলাল চক্রবর্তী কলকাতার হিন্দু কলেজের আদলে 2 একর জমিতে দৌলতপুরে হিন্দু একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তীতে হাজী মুহাম্মদ মহসিন ট্রাস্ট তার সৈয়দপুর এস্টেটের ৪০ একর জমি এই প্রতিষ্ঠানকে দান করে এবং মাসিক রুপি অনুদান বরাদ্দ করে।  ১৯৬৭ সালের ১লা জুলাই এটি সরকারি কলেজে রূপান্তরিত হয়।

এক নজরে সরকারি ব্রজলাল (বিএল) কলেজ:

  •  কলেজের নাম: সরকারি ব্রজলাল কলেজ, খুলনা
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • সংক্ষিপ্ত রূপ: বিএল কলেজ
  • প্রতিষ্ঠাকাল: 1902
  • ওয়েবসাইট: blcollege.edu.bd

7.সরকারি আনন্দমোহন কলেজ, ময়মনসিংহ

আনন্দ মোহন কলেজ বাংলাদেশের আরেকটি সুপরিচিত প্রতিষ্ঠান।  কলেজটি 1908 সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এটি দেশের অষ্টম বিভাগ ময়মনসিংহে অবস্থিত।  ময়মনসিংহ ইনস্টিটিউশন প্রতিষ্ঠানটি 1883 সালে বাঙালি শিক্ষাবিদ ও সমাজ সংস্কারক আনন্দ মোহন বসু দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয় 1880 সালে এই প্রতিষ্ঠানটি ময়মনসিংহ সিটি কলেজিয়েট স্কুল নামে তাদের কার্যক্রম শুরু করে।  ১৮৯৯ সালে ময়মনসিংহের দুটি নাগরিক কমিটি ময়মনসিংহ সভা ও আঞ্জুমানে ইসলামিয়া কলেজ প্রতিষ্ঠার দাবি জানায়।

আরও পড়ুনঃ  এইচএসসি ২০২২ সালের সকল বোর্ডের ফলাফল মার্কশিট সহ

চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে, সিটি কলেজিয়েট স্কুল আনন্দ মোহন বসুর সহায়তায় 16 জুলাই 1901 সালে ময়মনসিংহ সিটি কলেজ নামে তার শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে।  1986 সালে এই কলেজে স্নাতকোত্তর শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়।

এক নজরে সরকারি আনন্দমোহন কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1908
  • প্রতিষ্ঠাতা: আনন্দমোহন বসু
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • অবস্থান: কলেজ রোড, ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ
  • ওয়েবসাইট: anandamohangovtcollege.edu.bd

8.সরকারি এমএম কলেজ, যশোর

যশোর জেলার মাইকেল মধুসূদন কলেজ, বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের অন্যতম বৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  বিখ্যাত শিক্ষাবিদ ও বুদ্ধিজীবী মাইকেল মধুসূদন দত্তের নামে কলেজটির নামকরণ করা হয়েছে।  কলেজে প্রায় 26,000 শিক্ষার্থী এবং 19টি অনুষদ রয়েছে।
যশোর জেলা শহরের খড়কি এলাকায় অবস্থিত একটি স্নাতকোত্তর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।  প্রতিষ্ঠার সময় এটি যশোর কলেজ নামে পরিচিত ছিল, যা 1941 সাল থেকে এম.এম. কলেজ নামে পরিচিত।

এক নজরে সরকারি এমএম কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1941
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • সংক্ষিপ্ত রূপ: এমএম কলেজ
  • অবস্থান: শাহ আব্দুল করিম রোড, খাদকি, যশোর, খুলনা বিভাগ, বাংলাদেশ
  • ওয়েবসাইট: mmcollege.edu.bd

9.সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, কুমিল্লা

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলায় অবস্থিত।  এটি কুমিল্লার প্রাচীনতম এবং বিখ্যাত কলেজ। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ 1899 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি রায় বাহাদুর আনন্দ চন্দ্র রায় রানী ভিক্টোরিয়ার নামে প্রতিষ্ঠা করেন।

এক নজরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ:

  • স্থাপিত: 24 সেপ্টেম্বর 1899
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • অবস্থান: কুমিল্লা, বাংলাদেশ
  • ওয়েবসাইট: cvgc.edu.bd

10.এমসি কলেজ, সিলেট

মুরারী চাঁদ কলেজ ছিল সিলেট বিভাগের প্রথম কলেজ।  কলেজটি 1892 সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং এটি বাংলাদেশের সপ্তম প্রাচীনতম কলেজ। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই প্রতিষ্ঠানটি বৃহত্তর সিলেটের শিক্ষা, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। বর্তমানে কলেজটিতে 9টি একাডেমিক ভবন রয়েছে।

এক নজরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ:

  • প্রতিষ্ঠিত: 1892
  • ধরনঃ সরকারি কলেজ
  • অধিভুক্ত: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
  • অবস্থান: টিলাগড়, সিলেট, 3100
  • ওয়েবসাইট: mccollege.edu.bd

শেষ কথা

আজকের পোস্টে বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি, বাংলাদেশের সেরা 10টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা থেকে, আপনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলির অন্তর্ভুক্ত সেরা কলেজগুলি সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন।

পোস্টটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

Rate this post

3 thoughts on “বাংলাদেশের সেরা ১০ টি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়”

Leave a Comment